www.durbinnews.com::জানি এবং জানাই

তারেক রহমান রাজি হননি



 ওমর শরীফ    ৫ মে ২০১৯, রবিবার, ১১:১১   রাজনীতি বিভাগ


জরুরি জমানা। বিএনপির রাজনীতিতে তখনও দুর্দিন। তারেক রহমানকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। উদ্বিগ্ন নেতাকর্মীরা। দুশ্চিন্তায় বেগম খালেদা জিয়া। পরে অবশ্য তাকে এবং তার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকোকেও গ্রেপ্তার করা হয়।
জিয়া পরিবারের ঘোরতর সেই সময়ে পর্দার আড়ালে সরব হন তিনি। পেশায় ডাক্তার। তারেক রহমানের স্ত্রী হলেও রাজনীতি নিয়ে কখনো আগ্রহ ছিল না ডা. জোবায়দা রহমানের। ছাত্র জীবনে অবশ্য মেধার প্রমান রাখেন। তার এক ক্লাসমেট এখন এক বড় সাংবিধানিক পদে অধিষ্ঠিত। সে যাই হোক, জোবায়দা শুরুতে যোগাযোগ গড়ে তোলেন কূটনীতিকদের সঙ্গে। কে না জানে ওয়ান ইলেভেনের অন্যতম প্রধান খেলোয়াড়তো তারাই। বিএনপির হয়ে কূটনীতিকদের সঙ্গে দূতিয়ালীর কাজ তিনিই করেন। আইনি লড়াইয়েও পরামর্শ দেন আইনজীবীদের। ছুটে যান ব্যারিস্টার রফিক-উল হক, খন্দকার মাহবুব উদ্দিন আহমাদের মতো প্রবীণ আইনজীবীদের কাছে। সেসময় এই লেখকের কাছে রফিক-উল হক জোবায়াদার অমায়িক আচরণের প্রশংসাও করেছিলেন।
ওয়ান ইলাভেন অধ্যায় শেষ হয়। স্বামী তারেক রহমানকে নিয়ে লন্ডনে পাড়ি দেন জোবায়দা। মুক্ত হন খালেদা জিয়াও। কিন্তু বিএনপির ভাগ্য বিপর্যয় আর কাটে না। ২০০৮ সালে নির্বাচনে বিপর্যস্ত হয় দলটি। ভাবমূর্তি এবং শারীরিক অবস্থা দুটি মিলিয়ে তারেক রহমানের রাজনীতি শেষ হয়ে গেছে এমন মত জোরালো হয় বিএনপির একটি অংশের মধ্যে। ব্যারিস্টার রফিক-উল হক, প্রফেসর এমাজ উদ্দীন আহমেদসহ অনেকে খালেদা জিয়াকে পরামর্শ দেন জোবায়দা রহমানকে রাজনীতিতে নিয়ে আসার জন্য। কিন্তু জিয়া পরিবার বিশেষত তারেক রহমান এতে রাজি হন না। যে কারণে এক যুগেরও বেশি সময় ধরে রাজনীতিতে আসি আসি বলেও আসা হয়নি জোবায়দা রহমানের। ভবিষ্যতেও সে সম্ভাবনা কম। যদিও একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেই বলছে, তিনি রাজনীতিতে আসতে চেয়েছিলেন।
পর্যবেক্ষকরা বলছেন, রাজনীতিতে ভাবমূর্তি একটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। হাওয়া ভবনের কারণে তারেক রহমানের যে ভাবমূর্তি গড়ে ওঠেছে তা চাইলেও তিনি বদলাতে পারবেন না। এ নিয়তি হয়তো ইতিহাসই ঠিক করে দিয়েছে। বর্তমান শারীরিক অবস্থায় খালেদা জিয়ার পক্ষেও রাজনীতিতে আর সরব হওয়া সম্ভব নয়।
এই নয়া বাস্তবতায় বিএনপি টিকবে কি-না, টিকলেও এ দলের কান্ডারি কে হবেন সে প্রশ্ন দিনে দিনে বাড়ছে।






 এ বিভাগের অন্যান্য


রাজনৈতিক দলের কোনো ধর্ম থাকতে পারেনা: মঞ্জু


যে গোয়েন্দা রিপোর্টে শোভন-রাব্বানীর ভাগ্য বিপর্যয়


কাদের না রওশন: জাপার চেয়ারম্যান আসলে কে?


নতুন জামায়াতের আমির হতে পারেন মিয়া গোলাম পরওয়ার


জামায়াতের সংস্কাপন্থীদের উদ্যোগে সাড়া নেই


কামাল-ফখরুল কি আতাত করে বিএনপিকে ভোটে রেখেছিলেন?


নিউজার্সি স্টেট বিএনপির কমিটি গঠিত


স্বৈরশাসক থেকে কিংমেকার


নতুন দলে যোগ দিতে রাজি হননি রাজ্জাক ও মাহমুদুর রহমান


জাপা কি দুই ভাগ হয়ে যাবে?


যে কারণে সংস্কার বা নতুন দল নিয়ে আগ্রহ নেই জামায়াতে


এরিক কি তার বাবাকে দেখতেও পাবে না?


কে এই মহুয়া মৈত্র?


জামায়াতের প্রশংসায় অলি


ছাত্রদলের ১২ নেতাকে বহিষ্কার করলো বিএনপি





All rights reserved www.durbinnews.com