www.durbinnews.com::জানি এবং জানাই

সৌদি বর্বরতার হাত থেকে শিশুটির জীবন বাঁচান



 সম্পাদকীয় নোট    ৯ জুন ২০১৯, রবিবার, ১০:০২   সম্পাদকীয় বিভাগ


আরব বসন্তের উত্তাল সময়। ছেলেটির বয়স তখন মাত্র ১০। সৌদি শাসকদের প্রতি তার মনে ক্ষোভ। ভাইয়ের শিরচ্ছেদের জন্য সৌদি রাজপরিবারকেই হয়তো দায়ী মনে করতো সে। আরব বসন্ত তার ক্ষোভকে উসকে দেয়। ক্ষুদ্ধ বালক মুরতাজা কুরেইরিশ নেতৃত্ব দেয় একটি সাইকেল র‌্যালির। ৩০ জন বন্ধু ছিল সে র‌্যালিতে।  তিন বছর পর বিষয়টি নজরে পড়ে সৌদি আরবের প্রশাসনের। তাকে যখন গ্রেপ্তার হয় তখন মুরতাজার বয়স ১৩। পরিবার নিয়ে বাহরাইনে পালিয়ে যাচ্ছিল সে। মুরতাজার মিছিলকে রাষ্ট্রদ্রোহিতা মনে করে সৌদি প্রশাসন। এ কারণে তাকে শিরশ্ছেদের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ২০১৪ সালে আটকের পর থেকে তাকে দাম্মাম শহরের পূর্বাংশে অবস্থিত জুভেনাইল জেলে আটকে রাখা হয়েছে। তার সঙ্গে কোনো আইনজীবীকে দেখা করার সুযোগ দেয়া হয়নি। মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল জানিয়েছে, আটকের পর কুরেইরিশের ওপর চরম নির্যাতন চালানো হয়েছে। তাকে মিথ্যা প্রলোভন দেখানো হয় যে, যদি সে তার অপরাধ স্বীকার করে নেয় তবে তাকে ছেড়ে দেয়া হবে। এই কিশোরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর না করার জন্য সৌদি আরবের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে অ্যামনেস্টি। অ্যামনেস্টির সঙ্গে কণ্ঠমিলিয়ে আমরাও বলতে চাই, একটি শিশুর সাইকেল র‌্যালিকে রাষ্ট্রদ্রোহিতা হিসেবে বিবেচনা করা রীতিমতো বর্বরতা। তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর হবে ইতিহাসের একটি কালো অধ্যায়। এ থেকে সৌদি শাসকদের দূরে রাখার জন্য বিশ্ব বিবেককে এখনই জাগতে হবে।





All rights reserved www.durbinnews.com