www.durbinnews.com::জানি এবং জানাই

উচ্চ রক্তচাপ?



 অনলাইন ডেস্ক    ১৩ জুলাই ২০১৯, শনিবার, ৬:৩০   লাইফ বিভাগ


হাইপারটেনশন ইংরেজিতে Hypertension। এর আরেক নাম উচ্চ রক্তচাপ। HTN , বা HPN, হল একটি রোগ যখন কোন ব্যাক্তির রক্তের চাপ স্বাভাবিকের চেয়ে ঊর্ধ্বে থাকে প্রতিনিয়ত। হাইপারটেনশনকে প্রাথমি হাইপারটেনশন অথবা গৌণ হাইপারটেনশনে শ্রেণীভুক্ত করা হয়। প্রায় ৯০–৯৫% ভাগ ক্ষেত্রেই "প্রাথমিক হাইপারটেনশন" বলে চিহ্নিত করা হয়।বাকি ৫-১০% বিভিন্ন রোগের কারণে হয়ে থাকে। রক্তচাপ যদি স্বাভাবিকের চাইতে বেশি থাকে তাহলে তাকে উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশন বলে। তবে কেও উচ্চ রক্তচাপে ভুগছে তা বলার আগে অন্তত তিন দিন তিনটি ভিন্ন সময়ে অন্তত ৫ মিনিট বসে থাকার পর রক্তচাপ মাপা উচিত। না মেপে হুট করে বলাটা ভুল।  যদি তিন বারই বেশি পাওয়া যায়, তবে তিনি উচ্চ রক্তচাপে ভুগছেন বলে নিশ্চিত করে বলা যায়। বাংলাদেশে উচ্চ রক্তচাপ বা হাইপারটেনশনকে অনেকসময় শুধু "প্রেশার" বলেও উল্লেখ করা হয়। আবার অনেকেই এটা আমলেও নিতে ভুল করেন। এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে বিস্তারিত বলেন  প্রখ্যাত চিকিতসক ডা. এ বি এম আব্দুল্লাহ।  জেনে নেয়া যাক তার কথা। তিনি বলেন, আগে আপনাকে নিশ্চিত হতে হবে তার উচ্চ রক্তচাপ হয়েছে। তাকে ভালো করে ইতিহাস নিতে হবে। তার পরিবারে কারো রয়েছে কি না, বংশে রয়েছে কি না, জানতে হবে। মা-বাবার থাকলে হওয়ার আশঙ্কা কিন্তু বেশি থাকে। এ ছাড়া কিছু বিষয় তাকে সচেতনভাবে জিজ্ঞেস করতে হবে। ধূমপান করে কি না, এটি দেখতে হবে। ওজনটা দেখতে হবে। যাদের ওজন বেশি তাদের কিন্তু রক্তচাপের ঝুঁকি থাকে। এরপর তার ডায়াবেটিস রয়েছে কি না, দেখতে হবে। মেয়েরা বিশেষ করে পিল যারা খায় তাদের  এই উচ্চরক্তচাপ হতে পারে। যারা অনেকদিন ব্যথানাশক ওষুধ খায়, তাদেরও কিন্তু হতে পারে। যারা অলস জীবন যাপন করে, কোনো ব্যায়াম নেই, শারীরিক পরিশ্রম নেই, এ জিনিসগুলো কিন্তু আপনাকে বুঝে নিতে হবে, ওষুধ দেওয়ার আগে। যদি রোগীর ইতিহাস নিয়ে এগুলো পেয়ে যান এবং একবার হঠাৎ করে  ব্লাড প্রেশার একটু বেশি পেলে একে কিন্তু উচ্চ রক্তচাপ ধরা হয় না। রোগী দৌড়ে আমার চেম্বারে হেঁটে উঠল, প্রেশার কিন্তু পেতেও পারেন। বিশ্রাম নিয়ে আবার দেখেন, শুইয়ে নিতে পারেন। পর পর তিন দিন পর্যন্ত দেখেন, যদি সবসময় বেশি পান, তখন ধরে নিতে পারেন তার উচ্চ রক্তচাপ হতেও পারে।  সুতরাং একবার পেলে কিন্তু তাকে উচ্চ রক্তচাপ ধরে নেওয়া যাবে না। নিশ্চিত হয়ে এরপর নিতে হবে। এরপর যেসব কারণের কথা বললাম, এগুলো কমাতে পরামর্শ দিতে হবে। যেমন তার ওজন বেশি থাকলে সেটি কমাতে হবে। নিয়মিত হাঁটা চলার অভ্যাস থাকতে হবে। ভালোভাবে ঘুমাতে হবে। দুশ্চিন্তা, উদ্বেগ এগুলো কমাতে হবে। ধূমপান বন্ধ করতেই হবে। মেয়েদের বেলায় বললাম পিলের কথা, এটা বন্ধ করতে পারেন। ব্যথানাশক ওষুধ খেলে এগুলো বন্ধ করতে পারেন। এগুলো করে দেখতে পারেন। দেখে যদি মনে হয়, প্রেশার কমছে না, তখন অন্য কিছু ভাবতে হবে। এর মধ্যেও কিছু পরীক্ষা করা লাগতে পারে। যেমন ধরুন, রোগীর ব্লাড সুগার রয়েছে কি না, ডায়াবেটিস রয়েছে কি না দেখি। লিপিড প্রোফাইল, কোলেস্টেরল, ট্রাইগ্লিসারইড এগুলো পরীক্ষা করতে হয়। এগুলো রুটিন মাফিক করা হয়। আমরা একটি এক্সরে করি, ইসিজি করি। অন্য কোনো কারণ রয়েছে কি না দেখি। আসলে উচ্চ রক্তচাপের ৯০ ভাগ কারণ জানা যায় না। আমরা বলি ইডিওপ্যাথিক। আর সেকেন্ডারি কিছু কারণ থাকতে পারে। এ জন্য কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষা লাগতে পারে। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর, জীবনযাপনের ধরন পরিবর্তন করার পর যদি না হয়, তাহলে আমরা তাকে ওষুধ দেব। পাঠক চলুন এবার জেনে নেয়া যাক ভিন্ন কিছু- মরিচ দেহের মেটাবোলিজম প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করে অতিরিক্ত ওজন কমাতে পারে সহজেই। পানির পরিমাণ বেশি— এমন ফল ও সবজি উপকারে আসবে। এগুলো ওজন কমায় কোনো রকম সমস্যা ছাড়া। গমের আটার রুটি হতে পারে চর্বি পোড়ানোর নিত্যসঙ্গী। তবে গমের আটা খাওয়ার আগে সাবধান থাকতে হবে। পরিশোধিত গমে আঁশের পরিমাণ কম থাকে, ফলে এটি ওজন কমাতে একেবারেই সহায়ক নয়; তাই পরিশোধিত গম বা গমের আটা পরিহার করাই শ্রেয়। এছাড়া ডায়েটিংয়ের মাধ্যমে ওজন কমাতে চাইলে ডিম খাওয়াই উপযুক্ত। রক্তে কোলেস্টেরলের মাত্রা ঠিক থাকলে এবং উচ্চরক্তচাপ না থাকলে ওজন কমানোর সময় ডিম খাওয়া যাবে পরিমিত পরিমাণে। ডিম একটি সুষম আমিষ, যা অতিরিক্ত ওজন কমাতে সাহায্য করে এবং ডায়েটিংয়ের সময়টায় সুস্বাস্থ্য ধরে রাখে। প্রচুর পরিমাণে পানি পান অবশ্যই জরুরি। পানি ওজন কমাতে সহায়ক ভূমিকা রাখে।




 এ বিভাগের অন্যান্য


বাইক চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করছেন দুই বারের উপজেলা চেয়ারম্যান


বৃটেনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নাজমুলের কোটি কোটি টাকা বিনিয়োগের খবর


নাসায় নিয়োগ পেলেন সিলেটের মাহজাবিন


সাংবাদিকতার পেলে কিংবা পিসি সরকার


মানুষ কেন মিথ্যা না বলে থাকতে পারে না?


ডাবল স্ট্যান্ড করা রুবানা পড়ালেখার খরচ চালাতেন টিউশনি করে


ড্যানিয়েল যেভাবে আবদুল্লাহ হলেন


গাভীর দুধ নিয়ে বাজারে যেতাম বিক্রি করতে


মোটা বেতনের চাকরি ছেড়ে ১২০০ শিশুকে খাইয়ে চলেছেন মইনুদ্দিন


কে এই রুবাবা দৌলা?


ডেঙ্গু নিরাময়ে পেঁপে পাতার রস কি আসলেই কার্যকর?


ট্রাম্পকে বাংলাদেশ চেনানো হবে, তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে ৬৪ জেলায়


উচ্চ রক্তচাপ?


অধ্যাপক আ ব ম ফারুক, আপনাকে সালাম জানাই


২৪ জনের মধ্যে ২৩ জনের চাকরি হলো, কেবল জ্যাক মারই হলো না





All rights reserved www.durbinnews.com