www.durbinnews.com::জানি এবং জানাই

দুধ চোর বাবা, মুড়ি খেয়ে ছাত্রের বেঁচে থাকা এবং কানাডা



  ওমর শরীফ    ১৩ মে ২০১৯, সোমবার, ১:৪৮   সম্পাদকীয় বিভাগ


বাংলাদেশ এগিয়ে চলছে। এ নিয়ে কোন সন্দেহই নেই। অতি ধনী বৃদ্ধিতে আমরা শীর্ষে। আমাদের প্রবৃদ্ধি বাড়ছে। বিশ্ব ব্যাংক, এডিবি এতোদিন স্বীকার করতো না, এখন স্বীকার করছে। এতোসব অর্জনের একটি বড় অবদান বর্তমান সরকারের।

পদ্মা সেতু পরিণত হয়েছে আমাদের অহমের প্রতীকে। বিশ্ব ব্যাংককে থোড়াই কেয়ার করে আমরা এ সেতু নির্মান করছি। বড় বড় আরও অনেক সেতু হচ্ছে। মেট্রোরেল মাথা উচু করে দাঁড়াচ্ছে। শহরতো রীতিমতো উপরের দিকে ওঠছে।মন্ত্রীরা প্রায়শ’ই ঢাকা শহরের নাম নিতে গিয়ে কী কী যেন শহরের নাম নেন। সব মনে আসে না। তারা এও বলছেন, বাংলাদেশ এখন কানাডা ও থাইল্যান্ডের সমান।

স্বীকার করে নেয়া ভালো এ লেখকের বিভিন্ন দেশ দেখার অভিজ্ঞতা নেই। বাংলাদেশের ছোট্ট একটি গ্রামে জন্ম হয় আমার। এখনও এদেশের বাইরে কোথাও যাওয়ার সুযোগ হয়নি। তাই সত্যিই বাংলাদেশ থাইল্যান্ড, কানাডা হয়ে গেছে কি-না হলফ করে বলতে পারবো না।

তবে বাংলাদেশ যে অগ্রগতির রাস্তায় আছে সেটা বলতে পারবো। কিন্তু এটা গল্পের একটা দিক।অনেকেই এখন এটা স্বীকার করেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সঙ্গেই তাল মিলিয়ে বাংলাদেশে বৈশম্য চরমভাবে বেড়েছে। এক শ্রেণির মানুষের পকেট বড় হলেও আরেক শ্রেণি এখনও চরম গরীব রয়ে গেছেন। মানুষের লড়াই চলছে। বেঁচে থাকার লড়াই।

অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির সঙ্গে সমানতালে ভূমধ্যসাগরে এদেশের মানুষ লড়ছেন। তারা মারা যাচ্ছেন সাগরে। এদেশের কৃষক ধানের ন্যায্য মূল্য পাচ্ছেন না। এক কৃষক ক্ষোভে, দুখে নিজের ধানে আগুন দিয়েছেন। কোন এক ছাত্র টাকার অভাবে খেতে পারছেন না। কয়েকদিন বেঁচে থাকছেন মুড়ি খেয়ে। তার এক শিক্ষক তা ফেসবুকে শেয়ার করছেন। মানুষের হাহাকার জাগছে। কিন্তু সবই ক্ষণিকের। আরেক বাবা দুধ চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়ছেন। মানবিক এক পুলিশ কর্মকর্তা সে গল্প তুলে আনছেন সামাজিক মাধ্যমে। পরে অবশ্য ওই বাবার ভাগ্য খুঁলেছে। তার চাকরি হয়েছে সুপারশপ স্বপ্নে।

কিসে মুক্তি মিলবে এই সব থেকে। আসুন সবার আগে আমরা মানবিক হই। ভোগবাদী চিন্তা কমাই। একটু খোঁজ নেই, আমার পাশের বাড়ির মানুষটা কেমন আছে। এই দেশে আর কোন বাবাকে যেন দুধ চুরি করতে না হয়।

মানবিক বাংলাদেশ চাই।





All rights reserved www.durbinnews.com